Saturday , 21 April 2018
Breaking News
Home » Author Archives: TankiBazz

Author Archives: TankiBazz

চমকে দিয়েছে ‘বিজলী’- মুভি রিভিউ

সুপার হিরো’দের নিয়ে হলিউডে যত সিনেমা ব্যবসাসফল হয়েছে, তার বেশিরভাগই সফল হবার ক্ষেত্রে প্রধানতম উপাদান ছিল ভিএফএক্স-এর কাজ। আবেগের ভূমিকা কম থাকলেও চলে, কিন্তু স্পেশাল এফেক্টস হওয়া চাই চোখ ধাঁধানো। বলিউডও ‘কৃষ’ সিরিজ করতে গিয়ে নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী খরচ করেছিল স্পেশাল এফেক্টস-এ। ‘কোয়ি মিল গ্যায়া’ কিংবা ‘কৃষ’, ‘কৃষ থ্রি’ তো বটেই, ‘রা ওয়ান’ কিংবা ‘দ্রোণ’ ছবিতেও আমরা দেখেছি উড়ন্ত নায়কের ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ জাল এবং রুদাবাহ (পারসীয় পুরাণ)

বীর যোদ্ধা ‘জাল’-এর বিভিন্ন অভিযানের বর্ণনা দেয়া আছে পারসীয় পুরাণ ‘শাহনামা’ নামক গ্রন্থে। পারস্যের কবি ‘ফেরদৌসি’ ৯৭৭ থেকে ১০১০ খ্রিস্টাব্দের মাঝে লিখেছিলেন এই মহা-কাব্যগ্রন্থটি। এই মহা-কাব্যগ্রন্থের বিভিন্ন পৌরাণিক কাহিনীর সময়কাল পৃথিবী সৃষ্টির সময় হতে খৃস্টীয় সপ্তম শতক পর্যন্ত বিস্তৃত। যাই হোক, এই গ্রন্থে জালের বিভিন্ন অভিযানের পাশাপাশি বর্ণিত আছে রাজকুমারী ‘রুদাবাহ’-এর সাথে তার প্রেম কাহিনীও। আমরা এখন জানবো সেই কাহিনীটা ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ সিগফ্রাইড এবং ক্রিয়েমহাইল্ড (নর্স / জার্মান পুরাণ)

‘নিবেলুনেনলিদ’ কিংবা ‘নিবেলুন-এর গান’ হচ্ছে প্রাচীন জার্মানির এক মহাকাব্য। এই মহাকাব্যের উৎস হচ্ছে আবার ততোধিক প্রাচীন নর্স পুরাণ। খ্রিস্টীয় ষষ্ঠ শতকের দিকে জার্মানিতে মুখে মুখে চালু হওয়া এই গল্পের সাথে মিল খুঁজে পাওয়া যায় নর্স পুরাণের ‘ভোলসাং সাগা’ কিংবা ‘ভোলসাংদের গাঁথা’-র সাথে। পরবর্তীতে খ্রিস্টীয় দ্বাদশ শতাব্দীতে এই কাহিনীটা নিয়ে রচিত হয় মহাকাব্য। এই মহাকাব্যের মূল কপিগুলোর অবশিষ্টাংশ এখনো সংরক্ষিত আছে। ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ লিন্ডার এবং হিরো (গ্রীক পুরাণ)

‘হেলিসপন্ট’ অঞ্চলে চলছিলো বিশেষ উৎসব। ‘আফ্রোদিতি এবং এডোনিস’-এর ভালোবাসার স্মরণে প্রতিবছর এই উৎসব পালিত হয় এখানে। আশেপাশের শহর থেকে অনেক মানুষ এসে জড়ো হয়েছে মেলায়। আফ্রোদিতি এবং এডোনিসের ভালোবাসা গাঁথা নিয়ে চলছে গান গাওয়া, কবিতা আবৃত্তি, মঞ্চাভিনয় ইত্যাদি। লিন্ডার এবং হিরো (গ্রীক পুরাণ) ‘এবাইডস’ শহর থেকে মেলায় এসেছে সুদর্শন যুবক ‘লিন্ডার’। মুগ্ধতা নিয়ে উপভোগ করে যাচ্ছে উৎসবটাকে, বেশ ঘুরেফিরে বেড়াচ্ছে ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ ওকুনি-নুশি এবং সুসেরি-হিমে (জাপানী পুরাণ)

জাপানের প্রাচীন পৌরাণিক গ্রন্থসমূহের মধ্যে দু’টি হলো ‘কোজিকি’ (৭১২ খ্রিস্টাব্দের দিকে রচিত) এবং ‘ইৎযুমো নো কুনি ফুদোকি’ (৭৩৩ খ্রিস্টাব্দের দিকে রচিত)। এই দুই গ্রন্থে ‘ওকুনি-নুশি’ নামক এক দেবতার কাহিনী বলা হয়। ইৎযুমো অঞ্চলে তাকে দেবতা মেনে উপাসনা এবং বিভিন্ন উৎসব পালন করা হয়। ঔষধ-পথ্যের দেবতা হিসেবে মানা হয় তাকে। এছাড়া ধারণা করা হয়, জাপানের ইৎযুমো অঞ্চলের গোড়াপত্তন সে-ই করেছিলো। তার ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ নিউ-লাং’ এবং ‘ঝি-নু’ (চীনদেশীয় পুরাণ)

এই গল্পটির উৎপত্তি ২৬০০ বছর আগে, চীন দেশে। অর্থাৎ যিশুখ্রিস্টের জন্মেরও ৬০০ বছর আগে। চীনের প্রধান কয়েকটি পৌরাণিক কাহিনীর মাঝে এটা হচ্ছে একটা। বর্তমানে এই গল্পের অনেক সংস্করণ পাওয়া যায় জাপান, কোরিয়া, থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়া এবং ভিয়েতনামে। কিন্তু সব সংস্করণের আদি উৎস ঐ ২৬০০ বছর আগের চীনদেশীয় পুঁথিটাই, যাতে কবিতার আকারে বলা আছে ‘নিউ-লাং’ নামক এক রাখাল বালক এবং ‘ঝি-নু’ নামক ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ দুষ্মন্ত এবং শকুন্তলা (হিন্দু পুরাণ)

শকুন্তলা এবং দুষ্মন্তের প্রেম উপাখ্যান বর্ণিত আছে হিন্দু পুরাণ ‘মহাভারত’-এ। আমাদের আজকের কাহিনী শুরু করবো আমরা শকুন্তলার জন্ম উপাখ্যান দিয়ে। দুষ্মন্ত এবং শকুন্তলা (হিন্দু পুরাণ) ঋষি বিশ্বামিত্র এবং ঋষি বশিষ্ঠের সম্পর্ক ছিলো সাপে-নেউলে। বিশ্বামিত্রের সাথে বশিষ্ঠের এই ঝগড়া কীভাবে লাগলো, সেটা আরেক বিশাল কাহিনী। শুধু এটুকু বলি – বিশ্বামিত্র পূর্বে ছিলো রাজা। কিন্তু বশিষ্ঠের হাতে রাজ্য, বিশাল বাহিনী, এমনকি নিজের ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ হিপোলাইটাস এবং ফেইড্রা (গ্রীক পুরাণ)

হেরাক্লেস এবং পার্সিউসের মতোই গ্রীক পুরাণে আরেক জনপ্রিয় হিরো হচ্ছে থেসিউস (Theseus)। হেরাক্লেস কিংবা পার্সিউসের মতো থেসিউসেরও অনেকগুলো অভিযানের বর্ণনা আছে গ্রীক মিথলজিতে, যেখানে সে চোর-ডাকাত হতে শুরু করে দৈত্য-দানব পর্যন্ত বিভিন্ন শত্রুর মোকাবিলা করে। আমাদের আজকের গল্প পুরোটাই অবশ্য থেসিউসকে নিয়ে নয়। গল্পের বিশাল অংশই হচ্ছে তার পুত্র হিপোলাইটাস এবং স্ত্রী ফেইড্রা (হিপোলাইটাসের সৎ মা)-কে নিয়ে। থেসিউস এখানে ছোট্ট ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ এডোনিস এবং আফ্রোদিতি (গ্রীক পুরাণ)

‘এডোনিস’ নামটা এসেছে ক্যানানাইট (উত্তরপূর্ব সেমিটিক ভাষা; ফিনিশীয় এবং প্রাচীন ইসরাইলীয় সভ্যতার ভাষা এর অন্তর্গত) শব্দ ‘আদন’ থেকে। আদনের মানে হচ্ছে ‘প্রভু’। গ্রীক পুরাণে এডোনিস ছিলো চিরসবুজ প্রকৃতির দেবতা। সেই সাথে ছিলো সৌন্দর্য এবং উর্বরতার প্রতীক। আমাদের আজকের গল্পটা মোটামুটি তিন ভাগে ভাগ করা যায়। প্রথম ভাগে থাকবে দেবতা এডোনিসের জন্ম কাহিনী। সেই জন্ম কাহিনীর সুবাদে মঞ্চে প্রবেশ করবে ভালোবাসার ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ তাম্মুজ এবং ইশতার (ব্যাবিলনীয় এবং সুমেরীয় পুরাণ)

প্রাচীন মানুষেরা আশেপাশের জগত নিয়ে কীভাবে চিন্তা করতো, তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ পাওয়া যায় বিভিন্ন পৌরাণিক গ্রন্থে উঁকি মারলে। আমাদের জগতটা কীভাবে, কোথা থেকে এলো কিংবা কোনটা সঠিক, কোনটা ভুল, কোনটা ন্যায়, কোনটা অন্যায় – এসব চিন্তাভাবনার পাশাপাশি প্রেম-ভালোবাসা নামক জিনিসটাও অবশ্য কালে কালে মানুষকে ভাবিয়ে এসেছে বেশ। ফলে বিভিন্ন পুরাণে সৃষ্টিতত্ত্ব, ন্যায়-নীতির বিভিন্ন তত্ত্ব নিয়ে আলোচনার সাথে সাথেই উঠে এসেছে ... Read More »