Sunday , 22 April 2018
Breaking News
Home » বলিউড মুভি রিভিউ » Black (2005) হেলেন কেলার-এর জীবনী থেকে অনুপ্রাণিত এই সিনেমার সবকিছুই যেন পারফেক্ট

Black (2005) হেলেন কেলার-এর জীবনী থেকে অনুপ্রাণিত এই সিনেমার সবকিছুই যেন পারফেক্ট

Black (2005) কিছু কিছু সিনেমা দেখে স্পিচলেস হয়ে যেতে হয়, এককথায় ”ব্ল্যাক” কোনো সিনেমা নয়, বরং একটা এক্সপেরিয়েন্স।

Kai Po Che

Black মুভি ইনফোঃ
►►►Black (2005)
★Genre : Drama
★IMDb : 8.2/10
★Rotten Tomatoes : 67%

Black রিভিউঃ

ইন্টারভিউয়ারঃ পৃথিবীতে মহাসাগর কয়টি?
অন্ধ+বধির মিশেল-কে ইন্টারপ্রিটার প্রশ্ন বুঝিয়ে দিলে সে হাতের ইশারায় বলেঃ আমার কাছে পানির প্রতিটি বিন্দুই একেকটা মহাসাগর।
ইন্টারভিউয়ারঃ এই মেয়েটা তো ঠিকমত উত্তর দিচ্ছে না। আবারও জিজ্ঞেস করছি, পৃথিবীতে মহাসাগর কয়টি?
এবার মিশেল হাতের ইশারায় বলেঃ ৫টি।

উপরে ”ব্ল্যাক’‘ সিনেমার একটা দৃশ্য তুলে ধরেছি।

কিছু কিছু সিনেমা দেখে স্পিচলেস হয়ে যেতে হয়। অনেক কিছু বলতে চান কিন্তু বলতে পারেন না। আমার ক্ষেত্রে ”ব্ল্যাক” সেরকমই একটা সিনেমা। হেলেন কেলার-এর জীবনী থেকে অনুপ্রাণিত এই সিনেমার সবকিছুই যেন পারফেক্ট। সেটা অমিতাভ বচ্চন আর রাণী মুখার্জীর লাইফের অমানবিক লেভেলের পারফর্মেন্স হোক কিংবা নাচগানবিহীন character-driven গল্প কিংবা রবি কে. চন্দ্রন এর সিনেমাটোগ্রাফি কিংবা গায়ে লোম দাঁড়া করানো ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর। সঞ্জয় লীলা বনসালি কোন মাপের পরিচালক সেটা জানতে এই একটা সিনেমা দেখাই যথেষ্ট।

তার সিনেমাগুলোতে সাধারণত শ্রুতিমধুর গান আর নয়নাভিরাম কোরিওগ্রাফির আধিক্য থাকে। সেইদিক দিয়ে ”ব্ল্যাক” তার সবচেয়ে ব্যতিক্রমধর্মী কাজ এবং এখন পর্যন্ত তার সেরা কাজও। এই ছবিতে নাচগান কিছুই রাখেননি তিনি। বরং সিনেমার প্রতিটি ফ্রেমে রেখেছেন তিনি শিল্প বিষয়ক তার উন্নত রুচির স্বাক্ষর। ইন্সপিরেশনাল সিনেমা হলেও সিনেমা দেখার সময় মনে হয়নি সেটা জোর করে কোনো মেসেজ গিলাতে চাচ্ছে বা ইন্সপায়ার করে চাচ্ছে। এই দিকটাও আমার ভালো লেগেছে।

পরিচালক নিজের মত করে একটা সুন্দর গল্প বলতে চেষ্টা করেছেন, যেটা থেকে মানুষ ইন্সপায়ার হলেও হতে পারে, না হলেও অন্তত স্টেরিওটাইপ বলিউডের একঘেয়েমি কাটিয়ে একটা ভিন্নধারার ছবি দেখার আনন্দ নিতে পারে। যেভাবেই দেখা হোক, ”ব্ল্যাক” সবদিক দিয়েই সফল। ”ব্ল্যাক” এর আরেক সার্থকতা হল লেয়ার তৈরিতে। সাধারণত সিনেমার মাঝপথে এসেই একটা চরিত্র কেমন বা সে কী চায় সেটা সম্পর্কে একটা স্পষ্ট হয়ে যায়। কিন্তু এই সিনেমার শেষ পর্যন্ত পরিচালক ক্যারেক্টার ডেভেলপ করেছেন, দর্শককে বিমোহিত করেছেন।

এককথায় ”ব্ল্যাক” কোনো সিনেমা নয়, বরং একটা এক্সপেরিয়েন্স।

পারসোনাল রেটিংঃ ৯.৩/১০

হ্যাপি ওয়াচিং✌

মুভি রিভিউ লিখেছেনঃ আহমেদ ইরতিজা চৌধুরী নাফিস

Black (2005) কিছু কিছু সিনেমা দেখে স্পিচলেস হয়ে যেতে হয়, এককথায় ''ব্ল্যাক'' কোনো সিনেমা নয়, বরং একটা এক্সপেরিয়েন্স। Black মুভি ইনফোঃ ►►►Black (2005) ★Genre : Drama ★IMDb : 8.2/10 ★Rotten Tomatoes : 67% Black রিভিউঃ ইন্টারভিউয়ারঃ পৃথিবীতে মহাসাগর কয়টি? অন্ধ+বধির মিশেল-কে ইন্টারপ্রিটার প্রশ্ন বুঝিয়ে দিলে সে হাতের ইশারায় বলেঃ আমার কাছে পানির প্রতিটি বিন্দুই একেকটা মহাসাগর। ইন্টারভিউয়ারঃ এই মেয়েটা তো ঠিকমত উত্তর দিচ্ছে না। আবারও জিজ্ঞেস করছি, পৃথিবীতে মহাসাগর কয়টি? এবার মিশেল হাতের ইশারায় বলেঃ ৫টি। ... উপরে ''ব্ল্যাক'' সিনেমার একটা দৃশ্য তুলে ধরেছি। কিছু কিছু সিনেমা দেখে স্পিচলেস হয়ে যেতে হয়। অনেক কিছু বলতে চান কিন্তু বলতে পারেন না।…

Review Overview

User Rating: Be the first one !
0
Do you like this post?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

About Admin