Wednesday , 18 July 2018
Breaking News
Home » মিথলজি (page 3)

মিথলজি

চুপাকাব্রা (Chupacabra): লাতিন আমেরিকার বিস্ময় পৌরাণিক প্রাণী

চুপাকাব্রার নাম শোনেননি, এমন পুরাণ প্রেমী মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল! এর কাহিনী গ্রিক, রোমান বা আক্কাদিয় পুরাণের মত হাজার বছরের পুরনো নয়। মাত্র ২২ বছর ধরে এই চুপাকাব্রা নিয়ে মাতামাতি হচ্ছে। তাই একে বলা হয় “আধুনিক পৌরাণিক প্রাণী” বা আরবান লিজেন্ড। আমেরিকার গ্রামীণ অঞ্চলে ছড়িয়ে আছে চুপাকাব্রার কাহিনী। তাই একে প্রধানত আমেরিকার লৌকিক উপাখ্যানের একটি প্রাণি হিসেবেই চিহ্নিত করা হয়। ... Read More »

এল ডোরাডোঃ সোনার শহরে আপনাকে স্বাগতম!

সোনার প্রতি লোভ মানুষের অতি পুরনো। প্রায় সব যুগে, সব জাতি- সম্প্রদায়ের মধ্যেই সোনার প্রতি আলাদা লোভ বা টান দেখা যায়। পরিমাণ যাই হোক, সোনা সংগ্রহের জন্য মানুষ সবসময়ই সচেষ্ট থেকেছে ও তার সংগ্রহের পরিমাণ প্রতিনিয়ত বাড়ানোর সব চেষ্টাও তারা করেছে। এল ডোরাডোঃ সোনার শহরে আপনাকে স্বাগতম! এল ডোরাডো: মানবযুগে শত শত বছর জুড়ে থাকা সোনার প্রতি এই আগ্রহ জন্ম ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ জাল এবং রুদাবাহ (পারসীয় পুরাণ)

বীর যোদ্ধা ‘জাল’-এর বিভিন্ন অভিযানের বর্ণনা দেয়া আছে পারসীয় পুরাণ ‘শাহনামা’ নামক গ্রন্থে। পারস্যের কবি ‘ফেরদৌসি’ ৯৭৭ থেকে ১০১০ খ্রিস্টাব্দের মাঝে লিখেছিলেন এই মহা-কাব্যগ্রন্থটি। এই মহা-কাব্যগ্রন্থের বিভিন্ন পৌরাণিক কাহিনীর সময়কাল পৃথিবী সৃষ্টির সময় হতে খৃস্টীয় সপ্তম শতক পর্যন্ত বিস্তৃত। যাই হোক, এই গ্রন্থে জালের বিভিন্ন অভিযানের পাশাপাশি বর্ণিত আছে রাজকুমারী ‘রুদাবাহ’-এর সাথে তার প্রেম কাহিনীও। আমরা এখন জানবো সেই কাহিনীটা ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ সিগফ্রাইড এবং ক্রিয়েমহাইল্ড (নর্স / জার্মান পুরাণ)

‘নিবেলুনেনলিদ’ কিংবা ‘নিবেলুন-এর গান’ হচ্ছে প্রাচীন জার্মানির এক মহাকাব্য। এই মহাকাব্যের উৎস হচ্ছে আবার ততোধিক প্রাচীন নর্স পুরাণ। খ্রিস্টীয় ষষ্ঠ শতকের দিকে জার্মানিতে মুখে মুখে চালু হওয়া এই গল্পের সাথে মিল খুঁজে পাওয়া যায় নর্স পুরাণের ‘ভোলসাং সাগা’ কিংবা ‘ভোলসাংদের গাঁথা’-র সাথে। পরবর্তীতে খ্রিস্টীয় দ্বাদশ শতাব্দীতে এই কাহিনীটা নিয়ে রচিত হয় মহাকাব্য। এই মহাকাব্যের মূল কপিগুলোর অবশিষ্টাংশ এখনো সংরক্ষিত আছে। ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ লিন্ডার এবং হিরো (গ্রীক পুরাণ)

‘হেলিসপন্ট’ অঞ্চলে চলছিলো বিশেষ উৎসব। ‘আফ্রোদিতি এবং এডোনিস’-এর ভালোবাসার স্মরণে প্রতিবছর এই উৎসব পালিত হয় এখানে। আশেপাশের শহর থেকে অনেক মানুষ এসে জড়ো হয়েছে মেলায়। আফ্রোদিতি এবং এডোনিসের ভালোবাসা গাঁথা নিয়ে চলছে গান গাওয়া, কবিতা আবৃত্তি, মঞ্চাভিনয় ইত্যাদি। লিন্ডার এবং হিরো (গ্রীক পুরাণ) ‘এবাইডস’ শহর থেকে মেলায় এসেছে সুদর্শন যুবক ‘লিন্ডার’। মুগ্ধতা নিয়ে উপভোগ করে যাচ্ছে উৎসবটাকে, বেশ ঘুরেফিরে বেড়াচ্ছে ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ নিউ-লাং’ এবং ‘ঝি-নু’ (চীনদেশীয় পুরাণ)

এই গল্পটির উৎপত্তি ২৬০০ বছর আগে, চীন দেশে। অর্থাৎ যিশুখ্রিস্টের জন্মেরও ৬০০ বছর আগে। চীনের প্রধান কয়েকটি পৌরাণিক কাহিনীর মাঝে এটা হচ্ছে একটা। বর্তমানে এই গল্পের অনেক সংস্করণ পাওয়া যায় জাপান, কোরিয়া, থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়া এবং ভিয়েতনামে। কিন্তু সব সংস্করণের আদি উৎস ঐ ২৬০০ বছর আগের চীনদেশীয় পুঁথিটাই, যাতে কবিতার আকারে বলা আছে ‘নিউ-লাং’ নামক এক রাখাল বালক এবং ‘ঝি-নু’ নামক ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ দুষ্মন্ত এবং শকুন্তলা (হিন্দু পুরাণ)

শকুন্তলা এবং দুষ্মন্তের প্রেম উপাখ্যান বর্ণিত আছে হিন্দু পুরাণ ‘মহাভারত’-এ। আমাদের আজকের কাহিনী শুরু করবো আমরা শকুন্তলার জন্ম উপাখ্যান দিয়ে। দুষ্মন্ত এবং শকুন্তলা (হিন্দু পুরাণ) ঋষি বিশ্বামিত্র এবং ঋষি বশিষ্ঠের সম্পর্ক ছিলো সাপে-নেউলে। বিশ্বামিত্রের সাথে বশিষ্ঠের এই ঝগড়া কীভাবে লাগলো, সেটা আরেক বিশাল কাহিনী। শুধু এটুকু বলি – বিশ্বামিত্র পূর্বে ছিলো রাজা। কিন্তু বশিষ্ঠের হাতে রাজ্য, বিশাল বাহিনী, এমনকি নিজের ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ হিপোলাইটাস এবং ফেইড্রা (গ্রীক পুরাণ)

হেরাক্লেস এবং পার্সিউসের মতোই গ্রীক পুরাণে আরেক জনপ্রিয় হিরো হচ্ছে থেসিউস (Theseus)। হেরাক্লেস কিংবা পার্সিউসের মতো থেসিউসেরও অনেকগুলো অভিযানের বর্ণনা আছে গ্রীক মিথলজিতে, যেখানে সে চোর-ডাকাত হতে শুরু করে দৈত্য-দানব পর্যন্ত বিভিন্ন শত্রুর মোকাবিলা করে। আমাদের আজকের গল্প পুরোটাই অবশ্য থেসিউসকে নিয়ে নয়। গল্পের বিশাল অংশই হচ্ছে তার পুত্র হিপোলাইটাস এবং স্ত্রী ফেইড্রা (হিপোলাইটাসের সৎ মা)-কে নিয়ে। থেসিউস এখানে ছোট্ট ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ এডোনিস এবং আফ্রোদিতি (গ্রীক পুরাণ)

‘এডোনিস’ নামটা এসেছে ক্যানানাইট (উত্তরপূর্ব সেমিটিক ভাষা; ফিনিশীয় এবং প্রাচীন ইসরাইলীয় সভ্যতার ভাষা এর অন্তর্গত) শব্দ ‘আদন’ থেকে। আদনের মানে হচ্ছে ‘প্রভু’। গ্রীক পুরাণে এডোনিস ছিলো চিরসবুজ প্রকৃতির দেবতা। সেই সাথে ছিলো সৌন্দর্য এবং উর্বরতার প্রতীক। আমাদের আজকের গল্পটা মোটামুটি তিন ভাগে ভাগ করা যায়। প্রথম ভাগে থাকবে দেবতা এডোনিসের জন্ম কাহিনী। সেই জন্ম কাহিনীর সুবাদে মঞ্চে প্রবেশ করবে ভালোবাসার ... Read More »

বিভিন্ন পুরাণের প্রেম কাহিনীগুলোঃ ওসাইরিস এবং আইসিস (মিশরীয় পুরাণ)

প্রাচীন মানুষেরা আশেপাশের জগত নিয়ে কীভাবে চিন্তা করতো, তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ পাওয়া যায় বিভিন্ন পৌরাণিক গ্রন্থে উঁকি মারলে। আমাদের জগতটা কীভাবে, কোথা থেকে এলো কিংবা কোনটা সঠিক, কোনটা ভুল, কোনটা ন্যায়, কোনটা অন্যায় – এসব চিন্তাভাবনার পাশাপাশি প্রেম-ভালোবাসা নামক জিনিসটাও অবশ্য কালে কালে মানুষকে ভাবিয়ে এসেছে বেশ। ফলে বিভিন্ন পুরাণে সৃষ্টিতত্ত্ব, ন্যায়-নীতির বিভিন্ন তত্ত্ব নিয়ে আলোচনার সাথে সাথেই উঠে এসেছে ... Read More »