Tuesday , 17 July 2018
Breaking News
Home » সুপারভিলেন অরিজিন » সুপারভিলেন অরিজিন: ডিসির বিখ্যাত সুপারভিলেন জোকারের প্রেমিকা Harley Quinn

সুপারভিলেন অরিজিন: ডিসির বিখ্যাত সুপারভিলেন জোকারের প্রেমিকা Harley Quinn

আজ কথা বলবো ডিসির ভয়ংকর ভিলেন ডাক্তার হার্লিন ফ্রান্সেস কুইঞ্জেল হার্লি কুইনকে নিয়ে

পুরো নাম হার্লিন ফ্রান্সেস কুইঞ্জেল। হার্লি ডিসি কমিকসের নামকরা চরিত্র আর এর পেছনে কারণ হল সে হচ্ছে জোকারের কুখ্যাত সাইডকিক।হার্লির অভিষেক হয়েছিল ‘ব্যাটম্যান দ্য এনিমেটেড সিরিজ’ দিয়ে।১৯৯২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সিরিজের প্রথম সিজনের ২২ নাম্বার এপিসোড ‘জোকার’স ফেভর’এ প্রথম দেখা মিলে হার্লি কুইনের।যদিও সেই এপিসোডে হার্লির উৎপত্তি নিয়ে কিছু বলা হয়নি। তবে পরের বছরের সেপ্টেম্বরে এনিমেটেড সিরিজের কাহিনী অনুসরণ করে বের হওয়া কমিক্স সিরিজ ‘দ্য ব্যাটম্যান এডভেঞ্চারস’এর ম্যাড লাভ ইস্যুতে হার্লির উৎপত্তি সম্পর্কে ধারণা দেয়া হয়েছিল। পরবর্তীতে এনিমেশন সিরিজটির চতুর্থ সিজনের একি নামে তৈরি একটি এপিসোডে হার্লির অরিজিন তুলে ধরা হয়।

1

Supervillains Origin : Harley Quinn

গল্পের শুরুতে দেখানো হয় আরখাম মানসিক হাসপাতালে ডাঃ হারলিন কুইঞ্জেলএকজন শিক্ষানবিস ডাক্তার হিসেবে যোগদান করছে। জোকারের সাথে তার প্রথম দেখা হয় সেখানেই। হার্লির নামের সাথে ইতালিয়ান ক্লাউন হারলেকুইনের মিল দেখে জোকারের তার প্রতি আকৃষ্ট হয়। প্রথম দিনেই কোন একভাবে সে হার্লির অফিসে একটি চিরকুট পাঠায় যাতে লেখা ছিল “Come down and see me sometimes”। জোকারের উদ্ভট সব কার্যকলাপ দেখে তার প্রতি কৌতুহল বাড়ে হার্লির। সে নিজ থেকেই জোকারের চিকিৎসা করার আগ্রহ দেখায়। তাদের বিভিন্ন সেশনে জোকার হার্লিকে নিজের বিষাদময় অতীত এবং পাষণ্ড বাবার দুর্বব্যবহারের বিভিন্ন গল্প শোনাতে থাকে যার ফলে হার্লির মধ্যে জোকারের জন্য সহানুভূতির তৈরি হয়। একসময় জোকারের প্রেমে পরে যায়। একবার জোকার আরখাম থেকে পালিয়ে গেলে ব্যাটম্যান জোকারকে আহত অবস্থায় আরখামে ফেরত নিয়ে আসে। জোকারের এই অবস্থা দেখে বিষণ্ণ হার্লি সেদিনই হার্লেকুইনের কস্টিউম যোগার করে সেই ছদ্মবেশেই আরখামে হাজির হয় এবং জোকারকে মুক্ত করে নিয়ে যায়।

এনিমেটেড সিরিজে হার্লি কুইন চরিত্রের এই অরিজিন দেখানো হলেও পরবর্তীতে কমিক সিরিজে চরিত্রটির একটি ভিন্ন অরিজিন স্থাপিত করা হয়। সেখানে বলা হয় হার্লির মা ছিল একজন রুক্ষ স্বভাবের মহিলা যে সবসময় হার্লিকে বকাঝকা করতো। তার বাবা ছিল একজন কন-ম্যান, যে ছিল মহিলাদের ভুলিয়ে ভালিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতে ওস্তাদ।এছাড়া হার্লের এক ছোটভাই ছিল, ছেলেমেয়ে নিয়ে যে মার বাড়িতে থাকতো।হার্লি মাঝে মাঝেই তার ভাইকে মোটা অংকের টাকা দিতো যাতে সে স্বাবলম্বী হতে পারে। কিন্তু প্রত্যেকবারই সে টাকাগুলো অন্যথা নষ্ট করতো।

মনোবিজ্ঞান নিয়ে পড়ার সময় হার্লি অদ্ভুত এক যুক্তি খুজে বের করে যে প্রেমে পড়া আর অপরাধ করার মাঝে সামাঞ্জস্যতা আছে। একটা মানুষ ভালবাসার জন্যে কতদূর যেতে পারে সেটা দেখার জন্য সে তার বয়ফ্রেন্ড গাইকে ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নেয়। গাইয়ের প্রতিক্রিয়া দেখার জন্যে সে তার এক প্রফেসরকে খুন করেছে এমন একটি ঘটনা সাজিয়ে সেখানে গাইকে নিয়ে উপস্থিত হয়। হার্লিকে বাচাতে গাই মৃত প্রফেসর ভেবে এক নিরপরাধ জীবিত ব্যক্তিকে খুন করে বসে। দুর্ঘটনার অনুতপ্ত গাই আত্মহত্যা করার সিদ্ধান্ত নেয়। এবং এজন্য হার্লি কাছে সাহায্য চায়। হার্লি ভালবাসার স্বার্থে তাকে খুন করে পুরো ঘটনাকে আত্মহত্যা হিসেবে চালিয়ে দেয়।

a

এসব ঘটনায় মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হার্লি একসময় তার বয়ফ্রেন্ডের গাইয়ের মতো বিশ্বাস করা শুরু করে যে পৃথিবী আসলেই বিশৃঙ্খল জায়গা। নিজের জীবনের সাথে জোকারের অদ্ভুত মিল খুজে পায় সে। আর জোকারের মন মনমানসিকতা ছিল অনেকটা তার মৃত বয়ফ্রেন্ডের মত। তাই জোকারের সাথে কথা বলার জন্য আরখামে চাকরি নেয় হার্লি। এবং তাদের প্রথম সাক্ষাতেই জোকারকে সে তার জীবনে ঘটে যাওয়া কাহিনীগুলো বলে, যা শুনে জোকারও হার্লির প্রতি আকৃষ্ট হয়।পরবর্তীতে জোকারের সাইডকিক হওয়ার আগ পর্যন্ত বেশ কয়েকবার সে জোকারকে আরখাম থেকে পালাতে সাহায্য করে।

এভাবেই শুরু হয় জোকার এবং হার্লি কুইনের এডভেঞ্চার। একবার জোকারকে জেলে ঢুকানোর জন্যে দায়ী প্রসিকিউটরদের একজনকে খুন করার অপরাধে তাকে গ্রেফতার করে ব্ল্যাক ক্যানারি। তাকেও পাঠানো হয় বেলে রিভে কারাগারে। নিউ ৫২রিবুট অনুযায়ী, বেলে রিভ থেকেই জোর করে হার্লিকে সুইসাইড স্কোয়াডে নিয়ে আসে আমান্ডা ওয়ালার।

কোন সুপার পাওয়ার না থাকলেও সুইসাইড স্কোয়াডের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হার্লি কুইন।হ্যান্ড টু হ্যান্ড কমব্যাটে তার দক্ষতা অসাধারণ। এছাড়া অনেকদিন পয়জন আইভির সাথে কাজ করায় অনেক মারাত্মক বিষ তার কোন শারীরিক ক্ষতি করতে পারেনা।

– ধন্যবাদ।

সুপারভিলেন অরিজিন লিখেছেনঃ Jakaria Hasan

আজ কথা বলবো ডিসির ভয়ংকর ভিলেন ডাক্তার হার্লিন ফ্রান্সেস কুইঞ্জেল হার্লি কুইনকে নিয়ে পুরো নাম হার্লিন ফ্রান্সেস কুইঞ্জেল। হার্লি ডিসি কমিকসের নামকরা চরিত্র আর এর পেছনে কারণ হল সে হচ্ছে জোকারের কুখ্যাত সাইডকিক।হার্লির অভিষেক হয়েছিল ‘ব্যাটম্যান দ্য এনিমেটেড সিরিজ’ দিয়ে।১৯৯২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সিরিজের প্রথম সিজনের ২২ নাম্বার এপিসোড ‘জোকার’স ফেভর’এ প্রথম দেখা মিলে হার্লি কুইনের।যদিও সেই এপিসোডে হার্লির উৎপত্তি নিয়ে কিছু বলা হয়নি। তবে পরের বছরের সেপ্টেম্বরে এনিমেটেড সিরিজের কাহিনী অনুসরণ করে বের হওয়া কমিক্স সিরিজ ‘দ্য ব্যাটম্যান এডভেঞ্চারস’এর ম্যাড লাভ ইস্যুতে হার্লির উৎপত্তি সম্পর্কে ধারণা দেয়া হয়েছিল। পরবর্তীতে এনিমেশন সিরিজটির চতুর্থ সিজনের একি নামে তৈরি একটি এপিসোডে হার্লির…

Review Overview

User Rating: 4.83 ( 2 votes)
0
Do you like this post?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

About Admin