Monday , 21 May 2018
Breaking News
Home » ভারতীয় বাংলা মুভি রিভিউ » Heerak Rajar Deshe (1980) হীরক রাজার দেশে বিনোদনে ভরপুর সত্যজিৎ রায়ের অমর সৃষ্টি

Heerak Rajar Deshe (1980) হীরক রাজার দেশে বিনোদনে ভরপুর সত্যজিৎ রায়ের অমর সৃষ্টি

The Kingdom of Diamonds (হীরক রাজার দেশে) সত্যজিৎ রায়ের অমর সৃষ্টি

Kai Po Che

Heerak Rajar Deshe মুভি ইনফোঃ
Movie Name: Heerak Rajar Deshe (1980) হীরক রাজার দেশে
Genre: Musical comedy/Drama
Director : Satyajit Ray
IMDb Ratings: 7.4/10
Personal Rating: ৯ দিতে চেয়েছিলাম কিন্তু উৎপল দত্তের জন্য ১০ এ ১১ দিলাম।

হীরক রাজার দেশে মুভি রিভিউঃ

গতরাতে আমার অন্যতম খুব প্রিয় বাংলা মুভিটি ১২ বারের মত দেখার সময় মনে হল যে অন্যকোন মুভির রিভিউ দেই আর না দেই অন্তত এই মুভিটির রিভিউ দেয়ার ধৃষ্টতা আমি দেখাব। সত্যজিৎ রায়ের প্রশংসা করার মত শব্দ আমার কাছে নেই 🙁 ।

হীরক রাজার দেশে ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৮০ সালে। এই ছবিটি হচ্ছে গুপি গাইন এবং বাঘা বাইন ট্রিলজির দ্বিতীয় ছবি। হীরক রাজার দেশে ছবিটি দেখার আগে অবশ্যই গুপি গাইন এবং বাঘা বাইন ছবিটি দেখতে সবাইকে অনুরোধ করব কারন প্রথমটি না দেখলে হীরক রাজার দেশে ছবির ঘটে যাওয়া ঘটনার সাথে তাল মেলাতে একটু বেগ পেতে হবে। সত্যজিৎ রায়ের ছবি দেখেনি এমন কোন বাংলা মুভিপ্রেমি আছেন বলে আমার জানা নেই। যদি কেউ থেকে থাকেন তাহলে অবশ্যই ছবিগুলো দেখে নিতে পারেন। যারা মনে করেন যে বাংলা ছবিতে ক্রিয়েটিভিটি নেই, বড় এবং জটিল প্রেক্ষাপট নিয়ে বাংলা ছবি হয়না তাদের ভ্রান্ত ধারনা সত্যজিৎ রায়ের ছবির কয়েকটা দেখলেই চিরতরে দূর হয়ে যাবে। সত্যজিৎ রায়ের ছবিগুলো অনেক হলিউডের বড় বড় ডিরেক্টরদের কাছেও অনুপ্রেরণার নাম। মারটিন স্করসিস তাঁর বিখ্যাত মুভি ট্যাক্সি ড্রাইভার ছবিটির ট্রাভিস বিকেল চরিত্রটি সত্যজিৎ রায়ের অভিযান ছবির একটি চরিত্র থেকে অনুপ্রেরনা নিয়ে বানিয়েছিলেন।

হীরক রাজার দেশে ছবিটিতে অভিনয় করেছিলেন তপেন চ্যাটার্জি , রবি ঘোষ, সৌমিত্র চ্যাটার্জি এবং অসাধারন একটি চরিত্রে অসাধারন এক অভিনেতা যার নাম উৎপল দত্ত। সৌমিত্র চ্যাটার্জি,তপেন চ্যাটার্জি , রবি ঘোষ এর অভিনয় ক্ষমতা সম্পর্কে যারা বাংলা সিনেমা দেখেন তারা খুব ভালো করেই জানেন। তাদের সম্পর্কে আর কিছু বলছি না। এরা ছবিতে সবাই অসাধারন এবং সাবলীল অভিনয় করেছেন। কিন্তু উৎপল দত্ত এই ছবিতে সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন। কবিতার ছন্দের সুরে বলা তাঁর প্রতিটি সংলাপ আশ্চর্য, অদ্ভুত, দারুন এবং অসাধারন। তাঁর সংলাপগুলো এতই সুন্দর এবং এতই ক্রিয়েটিভ যে বার বার শুনতে ইচ্ছা করে। আর হীরক রাজা চরিত্রটি শুধু তাঁর মত এমন একজন বিশাল অভিনেতা ছাড়া আর কেউ করতে পারত কিনা তা নিয়ে সন্দেহ আছে। হীরক রাজা বাংলা সিনেমার ইতিহাসে সম্ভবত সবচেয়ে কাব্যিক ভিলেন :)। উৎপল দত্ত ছাড়া আরেকজন এই ছবিতে দারুন অভিনয় করেছেন আর তিনি হলেন গবেষক চরিত্রে সন্তোষ দত্ত। তাঁর সংলাপগুলোও ছিল ছন্দময়। হীরক রাজা এবং গবেষকের মধ্যকার ছন্দময় কথাবার্তা যেমন মজাদার তেমনিভাবে দারুন সৃষ্টিশীল। অভিনয় এবং সংলাপ এক কথায় অদ্ভুত এবং অস্বাভাবিক মাত্রায় সৃষ্টিশীল।

ছবির মিউজিক দিয়েছিলেন সত্যজিৎ রায় নিজে। গানের কথাগুলোও তাঁর লেখা!!!! তাঁর বহুমুখী প্রতিভার কথা প্রায় সবাই হয়ত জানেন। তাই নতুন করে তাঁর বহুমুখী গুনাবলি বর্ণনা করলাম না। একজন মানুষ এত প্রতিভার অধিকারী কিভাবে হয় কে জানে!!! সত্যজিৎ রায় হীরক রাজার দেশে ছবিটির জন্য ভারতের জাতীয় পুরস্কারের তিনটি শাখায় পুরস্কার পান। তিনি শ্রেষ্ঠ নির্দেশক, শ্রেষ্ঠ সুরকার এবং শ্রেষ্ঠ গীতিকার বিভাগে পুরস্কারগুলো জিতে নেন।!! সত্যজিৎ রায় তাঁর জীবনাবস্থায় ৩২ টি জাতীয় পুরস্কার এবং ৫৯ টি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেছিলেন যার মধ্যে একটি ছিল লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট একাডেমী এওয়ার্ড। কি বলব!! আর প্রশংসা করতে পারছি না!! ভাষা নেই!!!

হীরক রাজার দেশে ছবিটি এক অসাধারন শিল্পকর্ম। বাংলা সিনেমা কোন কালেও অভাবী ছিল না। ওপার বাংলাতেও না এপার বাংলাতেও না। আমাদের এই প্রিয় ভাষায় অনেক গুণী ব্যাক্তি অসাধারন সব মুভি বানিয়ে গেছেন। আমাদের শুধু শিল্পকর্মগুলো একটু খুজে নিতে হয়। বাংলা সিনেমায় আছে অসাধারন সব কালজয়ী চলচিত্র। যারা বাংলা সিনেমাকে নিয়ে কটাক্ষ করে তাদের অপ্রাপ্তির খাতা অনেক ভারি। কারন তারা জানেনা বাংলা সিনেমা কি জিনিস এবং তারা কি থেকে বঞ্ছিত হচ্ছে। একটি জীবন থেকে নেয়া, একটি পথের পাঁচালী, একটি তিতাস একটি নদীর নাম কিংবা একটি সত্যজিৎ, একটি জহির রায়হান, একটি ঋত্বিক ঘটক জগতের অনেক সিনেমা নির্মাতার চেয়ে অনেক গুণী এবং অনেক অনেক পারদর্শী ছিলেন। তাই আমাদের সবার উচিত ভালো বাংলা ছবি দেখা এবং নিজেদের সংস্কৃতি উপভোগ করা। 🙂

কাহিনী সংক্ষেপ :

হীরক রাজার দেশে হচ্ছে বিখ্যাত গুপি গাইন এবং বাঘা বাইন এর আরেকটি দুর্দান্ত অভিযানের গল্প। গল্পে জাদুকরী গায়ক এবং বাদক জুটি গুপি এবং বাঘাকে হীরক রাজা তাঁর রাজ দরবারে গান গাইবার জন্য আমন্ত্রন জানায় তাঁর রাজ্যের একটি উৎসব উপলক্ষে।

তাদের আগের অভিযানের পর গুপি ও বাঘা সুখেই রাজ পরিবারের জামাই হয়ে দিন কাটাচ্ছিল। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই তাদের কাছে রাজকীয় জীবন একঘেয়ে হয়ে উঠে। তাই হীরক রাজার আমন্ত্রন পাওয়া মাত্রই তারা এই সুযোগটি হাতছাড়া না করে হীরক দেশের দিকে রউনা দেয়।

অন্যদিকে হীরক দেশের হীরক রাজা একজন অত্যাচারী রাজা। সে চায় তাঁর রাজ্যের প্রজারা যেন তাকে ভগবান মনে করে। সে প্রজাদের কাছ থেকে জোর করে খাজনা আদায় করে। সে তাঁর রাজ্যে লেখাপড়া নিষিদ্ধ করে দেয়। এবং প্রজাদের জোর করে বিভিন্ন অদ্ভুত শিক্ষা দেয়। এর মধ্যে কয়েকটি হচ্ছেঃ

“বাকি রাখা খাজনা
মোটে ভাল কাজনা”

“অনাহারে নাহি খেদ
বেশি খেলে বাড়ে মেদ”

“লেখা পড়া করে যে
অনাহারে মরে সে ” 😀 😀 😀 😀

আর যারা তাঁর কথা মানতে অমান্য করে তাদেরকে গবেষকের দ্বারা তৈরি মগজধোলাই যন্ত্র দিয়ে তাদের মগজধোলাই করে কথা মানতে বাধ্য করায়। কিন্তু রাজা যখন শিক্ষার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে তখন রাজ্যের একমাত্র স্কুলের শিক্ষক তাঁর বিরোধিতা করে। রাজা তাঁর সৈন্য দিয়ে স্কুলের সমস্ত ছাত্রদের যন্তর মন্তর ঘরে ধরে নিয়ে মগজধোলাই করে দেয়। শুধু স্কুলের শিক্ষক পালিয়ে গিয়ে এক পাহাড়ে আশ্রয় নেয়। সেখানে তার দেখা হয় গুপি এবং বাঘার সাথে। গুপি এবং বাঘা শিক্ষকের সব কথা শুনে তাকে সাহায্য করতে প্রস্তুত হয়।

গুপি আর বাঘা কি পারে তাদের জাদুকরী ক্ষমতা দিয়ে হীরক রাজার অত্যাচার রুখতে? এর উত্তর জানার জন্য অবশ্যই আপনাদের মুভিটি দেখতে হবে। 🙂

সবশেষে মুভির একটি গানের উদ্ধৃতি দিয়ে আমার এই মামুলি লেখাটি শেষ করছি।

“কতই রঙ্গ দেখি দুনিয়ায়,
আমি যে দিকেতে চাই, দেখে অবাক বনে যাই
আমি অর্থ কোন খুজে নাহি পাইরে,
ও ভাইরে!”

ভাল সিনেমা দেখুন এবং সবাইকে দেখতে উৎসাহিত করুন।

ধন্যবাদ সবাইকে।

The Kingdom of Diamonds (হীরক রাজার দেশে) সত্যজিৎ রায়ের অমর সৃষ্টি Heerak Rajar Deshe মুভি ইনফোঃ Movie Name: Heerak Rajar Deshe (1980) হীরক রাজার দেশে Genre: Musical comedy/Drama Director : Satyajit Ray IMDb Ratings: 7.4/10 Personal Rating: ৯ দিতে চেয়েছিলাম কিন্তু উৎপল দত্তের জন্য ১০ এ ১১ দিলাম। হীরক রাজার দেশে মুভি রিভিউঃ গতরাতে আমার অন্যতম খুব প্রিয় বাংলা মুভিটি ১২ বারের মত দেখার সময় মনে হল যে অন্যকোন মুভির রিভিউ দেই আর না দেই অন্তত এই মুভিটির রিভিউ দেয়ার ধৃষ্টতা আমি দেখাব। সত্যজিৎ রায়ের প্রশংসা করার মত শব্দ আমার কাছে নেই 🙁 । হীরক রাজার দেশে ছবিটি মুক্তি পায়…

Review Overview

User Rating: 4.9 ( 1 votes)
0
Do you like this post?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

About Admin