হাস্যরসাত্মক এই ছবিটি যে শুধু ছোটদের জন্যে সেটা বলবোনা। এটি খুব মজার একটি মুভি। প্রচুর হাস্যকর একটা মুভি।আর এই মুভিতে খুব সুন্দর একটি মেসেজ আছে, যেটা বন্ধুত কি সেটা বুঝা যায়।দুই বন্ধুর মধ্যে কেমন মিল, কেন টান থাকে তাই এই মুভিতে খুব সুন্দর করে ফুটিয়ে তুলেছে। মুভি টি সম্পর্কে কিছু না বলে পারলাম না।

Kai Po Che

 

 

 

 

 

 

 

 

Captain Underpants মুভি ইনফোঃ

Captain Underpants (2017)
Movie : Captain Underpants 2017
IMDb Rating : 6.2/10
My Rating : 8/10
Rotten Tomatoes : 86%

Captain Underpants রিভিউঃ

জর্জ আর হ্যারোল্ড,দুই বন্ধু,তাদের শখ কমিক লেখা। আর এভাবেই তারা তাদের একটা ক্যারেক্টার তৈরী করে ফেলে ক্যাপ্টেন আন্ডারপ্যান্টস। এটা তাদের তৈরী করা সবচেয়ে সেরা সুপারহিরো।তাদের দুজনার বন্ধুত্ব জগতজোড়া। একজনকে ছাড়া আরেকজন একেবারেই থাকতে পারেনা। খুব ছোট বেলা থেকেই তাদের বন্ধুত্ব।বিধাতা তাদের তৈরী করার সময় হয়তো, ব্রেইনে অন্যান্য জিনিসের তুলনায় সেন্স অফ হিউমাররের মাত্রাটা বাড়িয়েই দিয়েছেন।স্কুলে তাদের উপর মারাত্মক চাপ তৈরী করা হয়। কিন্তু এর মাঝেও তারা তাদের দুষ্টুমি দমিয়ে রাখতে পারেনা।তাদের বিশ্বাস, শুধুমাত্র পড়াশোনাতেই শিশুদের সীমাবদ্ধ রাখতে নেই। এই বয়সটা তাদের খেলার বয়স, তাদের মজা করার বয়স।

তাদের প্রধান শত্রু তাদের স্কুলের প্রিন্সিপ্যাল। সে তাদের দুজনের বন্ধুত্ব চিরতরে শেষ করে দিতে চায়। এবং তাদের আলাদা আলাদা ক্লাসে শিফট করার সিদ্ধান্ত নিলে দুই বন্ধুর মধ্যে জর্জ একটি হিপনোটাইজ করার রিংয়ের মাধ্যমে প্রিন্সিপ্যাল কে হিপনোটাইজ করে ফেলে এবং তাকে ক্যাপ্টেন আন্ডারপ্যান্টস হওয়ার আদেশ প্রদান করে। হিপনোটাইজড হওয়ার দরুন, প্রিন্সিপ্যাল ক্যাপ্টেন আন্ডারপ্যান্টের রোল প্লে করতে থাকতে। ওদিকে সাইন্সের টিচারের ঘাটতি থাকার কারণে, নতুন একজন সাইন্স টিচার আসে, তাদের স্কুলে। এবং ওই টিচারের সবচেয়ে ঘৃনার জিনিস হচ্ছে হাসি। তিনি হাসি ছাড়া পৃথিবী বানানোর চেষ্টা করছেন। এবং ঘটনাক্রমে তিনি হয়ে উঠেন জর্জ আর হ্যারোল্ডের তৈরী করা কমিকের ভিলেন।

কিন্তু নানা বাধাবিপত্তির মাধ্যমে জর্জ আর হ্যারোল্ড তাদের ওই সাইন্স টিচারের হাসিবিহীন পৃথিবী তৈরী করার প্ল্যানকে নষ্ট করে ফেলে এবং কাকতালীয় ভাবে তাদের ক্যাপ্টেন আন্ডারপ্যান্টস তথা প্রিন্সিপ্যালের মধ্যে সুপার পাওয়ার চলে আসে। এভাবে তারা ভিলেনকে হারানোর মাধ্যমে পৃথিবীতে টিকিয়ে রাখে হাসি। আর বাচ্চাদের পড়ার বোঝা কমিয়ে বিনোদনের যোগাড় করে।

মারাত্মক হাসির একটি ছবি। স্পেশালি জর্জ আর হ্যারোল্ডের কথা, কাজকর্ম, মুখভঙ্গি সবকিছু মিলিয়ে হাসতে বাধ্য করবেই।আর বিশেষ করে কথায় কথায় ডলফিনের ছবি বানিয়ে ফেলা। আমারতো খুব ভালো লেগেছে। জর্জ আর হ্যারোল্ড এই দুই টি চরিত্র আমার প্রিয় হয়ে গেছে।

হ্যাপি ওয়াচিং✌

মুভি রিভিউ লিখেছেনঃ শৈবাল সাহা তপু

Captain Underpants (2017) খুব মজার একটি মুভিTankiBazzহলিউড মুভি রিভিউCaptain Underpants
হাস্যরসাত্মক এই ছবিটি যে শুধু ছোটদের জন্যে সেটা বলবোনা। এটি খুব মজার একটি মুভি। প্রচুর হাস্যকর একটা মুভি।আর এই মুভিতে খুব সুন্দর একটি মেসেজ আছে, যেটা বন্ধুত কি সেটা বুঝা যায়।দুই বন্ধুর মধ্যে কেমন মিল, কেন টান থাকে তাই এই মুভিতে খুব সুন্দর করে ফুটিয়ে তুলেছে। মুভি টি সম্পর্কে...